আজ শুক্রবার | ৩০ শ্রাবণ, ১৪২৭ | ১৪ আগস্ট, ২০২০ | ২৩ জিলহজ, ১৪৪১ | রাত ২:১০
গোপালগঞ্জ, গোবড়া সবান রোড, ঢাকা, বাংলাদেশ
শুক্রবার || রাত ২:১০ || ১৪ আগস্ট, ২০২০

থানায় বোমা বিস্ফোরণের জড়িত শহীদুলকে আগেই গ্রেফতার করেছিল পুলিশ ?

শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক

শনিবার, ০১ আগস্ট ২০২০ | ৫:৫২ পূর্বাহ্ণ

থানায় বোমা বিস্ফোরণের জড়িত শহীদুলকে আগেই গ্রেফতার করেছিল পুলিশ ?
ছবি: সংগৃহীত

রাজধানীর পল্লবী থানায় বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় কথিত ৩ ভাড়াটে খুনির একজন শহিদুল। পুলিশের দাবি, ২৯ তারিখ ভোরে পল্লবী কবরস্থান এলাকা থেকে অস্ত্রসহ তাদের গ্রেফতার করা হয়।

কিন্তু গ্রেপ্তার হওয়া ৩ জনের একজন শহিদুলের পরিবারের দাবি, ২৭ তারিখ বিকেলে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে তাকে তুলে নিয়ে যায় । এরপর থানায় আটকে রেখে অস্ত্র ও বোমা বিস্ফোরণের নাটক সাজানো হয়।

শহিদুলকে ডিবি পরিচয়ে তুলে নেয়ার সিসিটিভি ফুটেজও সংগ্রহ করেছে তার পরিবার। তুলে নেওয়ার সময় দেখেছেন তার শ্বশুরও।

এদিকে শহিদুলের স্ত্রী বলছে, শহিদুল ২৭ তারিখ থেকে নিখোঁজ হয়। থানায় নিখোঁজের বিষয়ে ২৭ তারিখে জিডিও করেছে শহিদুল এর পরিবার। যদিও পরিবারের এ দাবির বিষয়ে জানতে চাইলে এড়িয়ে যায় পুলিশ।

উল্লেখ্য যে , ঈদুল আযহাকে ঘিরে সম্প্রতি দেশজুড়ে জঙ্গি হামলার আশঙ্কায় পুলিশ সদর দপ্তর থেকে সতর্কবার্তা জারি করা হয়।

সেখানে পুলিশকে টার্গেট করে বা পুলিশি স্থাপনায় হামলা হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করে সদর দপ্তর। এর জন্য রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ এলাকা গুলোর চেকপোস্টের নজরদারি বাড়ানো হয়।

ঠিক তার দুদিন পর গত বুধবার ভোরে মিরপুর পল্লবী থানায় বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটলো। পুলিশ বলছে তিন আসামিকে গ্রেপ্তার করে পল্লবী থানায় নিয়ে আসা হলে তাদের কাছে থাকা একটি ডিজিটাল ওয়েট মেশিন থেকে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

এতে চারজন পুলিশ সদস্যসহ পাঁচজন আহত হয় । আহতদের মধ্যে পিএসআই অঙ্কুশের দুই হাত , বাম পা এবং রিয়াজ নামে একজন ব্যক্তির দুই হাত ও পেট বিস্ফোরণে আঘাতপ্রাপ্ত হয়।

তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে থানার ভিতরে থাকা আরও দুটি বোমা নিষ্ক্রিয় করে বোমা ডিসপোজাল ইউনিট।

তবে পল্লবী থানা ভবন পরিদর্শনে এসে ঢাকা মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার কৃষ্ণপদ রায় জানান বিস্ফোরণের ঘটনায় কোনো জঙ্গি সংশ্লিষ্টতা নেই। স্থানীয় একটি অপরাধীচক্র কোনো অপরাধ সংঘটনের চেষ্টা করছিল তাদের গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে আসা হলে এ ঘটনা ঘটে।

ঢাকা মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার কৃষ্ণপদ রায় জানান, বিভিন্ন অজুহাতে যারা জঙ্গী তৎপরতা পরিচালিত করে তারা এই গ্রুপের সদস্য নয় । তারা কোনো না কোনো ক্রিমিনাল গ্রুপের সদস্য।

এ ঘটনায় চার পুলিশসহ পাঁচজন আহত হন। এ ঘটনায় আসামীদের বিরুদ্ধে দুটি মামলা হয়েছে।

Gopalganj, Gobra Saban Road, Dhaka Bangladesh
Acting Editor: Masum Akter Tanim, Newsroom And Management Mobile: +8801763-234376 || Communication With The Editorial Council: 01780-242169
Email: press24.info2020@gmail.com, press24.bangladesh2020@gmail.com, Copyright © 2019-2020, development by webnewsdesign.com