আজ শুক্রবার | ১০ আশ্বিন ১৪২৭ | ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ | ৭ সফর ১৪৪২ | সন্ধ্যা ৭:২২
গোপালগঞ্জ, গোবড়া সবান রোড, ঢাকা, বাংলাদেশ
শুক্রবার || সন্ধ্যা ৭:২২ || ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০

যে গ্রামে পাখিরা আগুনে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করে

শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক প্রতিবেদক - ভারত

বুধবার, ১৯ আগস্ট ২০২০ | ১০:০২ পূর্বাহ্ণ

যে গ্রামে পাখিরা আগুনে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করে
সংগৃহীত ছবি

ভারতের আসাম রাজ্যের দিমা হাছাও জেলার অপরূপ সুন্দর এক গ্রাম জাতিঙ্গা।
তবে গ্রামটির পরিচিতি পাখির মৃত্যুউপত্যকা আর পাখিদের আত্মহত্যা পুরী  নামে ।
মাত্র আড়াই হাজার গোষ্ঠীর এই গ্রামের একদিকে পাহাড় আর অন্যদিকে বিস্তীর্ণ জঙ্গল।

প্রাকৃতিক নৈসর্গিক সম্পদে সমৃদ্ধ আর রহস্য ঘেরা এই গ্রামে প্রায় ১০০ বছর ধরে
হাজার হাজার পাখি আগুনে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করছে।

শতাধিক বছর আগেই নাগা উপজাতি একদল মানুষ জাতিঙ্গায় পৌঁছে আগুন পোহানোর সময় এক আশ্চর্য দৃশ্য দেখতে পায়।
তারা দেখে দলে দলে পাখি এসে আগুনে আত্মাহুতি দিচ্ছে।

এরপর থেকেই এই বিস্ময়কর ঘটনা দেখতে জাতিঙ্গায় ভিড় করে বহু মানুষ।
সেপ্টেম্বর-অক্টোবর মাসের চাদঁহীর অন্ধকারাচ্ছন্ন রাতগুলো জাতিঙ্গায় পাখিদের আত্মহত্যার জন্য শ্রেষ্ঠ সময়।

এসময় প্রায় ৪৪ প্রজাতির পাখি সন্ধ্যা ছয়টা থেকে রাত সাড়ে নটার মধ্যে আত্মাহুতির জন্য ঝাপাঝাপি করতে থাকে।

আর প্রতি বছর একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হয়।
গ্রামের অনেকেই এসময় পাখি ধরার জন্য আগুন জেলে খাঁচা নেই অপেক্ষা করে।
যখন পাখিরা ঝাঁপিয়ে পড়তে শুরু করে তখনই তারা পাখিগুলোকে ধরে খাঁচায় পুরে ফেলে।

জাতিঙ্গার একটি নির্দিষ্ট এলাকায় মধ্যেই এরকম করে থাকে পাখিরা।
এই এলাকার বাইরে পাখিদের আচরণ স্বাভাবিক।

যে কারণে অনেকেরই দাবি,
ওই নির্দিষ্ট এলাকার উচ্চতা, বাতাসের চাপ, এবং কুয়াশার কারণে পাখিরা দিকভ্রান্ত হয়ে আগুনে ঝাঁপ দেয়।
আর উজ্জ্বল আলো এমনিতেই পাখিদের দিকভ্রান্ত করে দেয়।

ভারতের বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ কর্মকর্তারা,
ওই অঞ্চলে পাখিদের  আত্মহত্যা বন্ধে উদ্যোগ নেয়ায় বিগত কয়েক বছরে পাখি হত্যার হার ৪০ শতাংশে নেমে এসেছে।

তবে আসাম সরকার এই বিস্ময়কর ঘটনাকে পুঁজি করে ভ্রমণপিপাসুদের আকৃষ্ট করে থাকে।

জাতিঙ্গায় কেনো পাখিরা বছর এই সময় আত্মহত্যা বা  আত্মাহুতি দেয় তা আজও অজানা।
প্রাণিবিজ্ঞানীরা দীর্ঘদিন গবেষণা করে এ ঘটনার প্রকৃত কারণ খুঁজে বের করতে সক্ষম হয়নি।
ফলে জাতিঙ্গা আজও রহস্যেই ঢাকা।

Gopalganj, Gobra Saban Road, Dhaka Bangladesh
Acting Editor: Masum Akter Tanim, Newsroom And Management Mobile: +8801763-234376 || Communication With The Editorial Council: 01780-242169
Email: press24.info2020@gmail.com, press24.bangladesh2020@gmail.com, Copyright © 2019-2020, development by webnewsdesign.com